জুট ডাইভারসিফিকেশন প্রমোশন সেন্টার (জেডিপিসি)


বহুমুখী পাটজাতপণ্য উৎপাদন ও ব্যবহার বৃদ্ধির লক্ষ্যে জুট ডাইভারসিফেকেশন প্রমোশন সেন্টার (জেডিপিসি) সুনির্দিষ্ট কর্মসূচীর ভিত্তিতে কার্যক্রম পরিচালনা করে যাচ্ছে। *জেডিপিসি বহুমুখী পাটপণ্য উৎপাদনকারী উদ্যোক্তাদের ০৭টি জেইএসসি সেন্টার এর মাধ্যমে নিডবেস বিভিন্ন ধরনের প্রশিক্ষণ দিচ্ছে। প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত জেডিপিসির ৭৪৩ জন উদ্যোক্তা ২৮৩ প্রকার দৃষ্টিনন্দন বহুমুখী পাটপণ্য তৈরী করে দেশে বিদেশে বাজারজাত করছে। * উচ্চমূল্য সংযোজিত বহুমুখী পাটপণ্যের সুফল সম্পর্কে মানুষের সচেতনতা বৃদ্ধি ও পাটপণ্য ব্যবহারে পরিবেশগত ইতিবাচক দিক তুলে ধরার মাধ্যমে পাটপণ্য ব্যবহারে উদ্বুদ্ধ করার নিমিত্বে কর্মশালার আয়োজন করা হয়। * ৬ মার্চ জাতীয় পাট দিবসে জেডিপিসি কর্তৃক বহুমুখী পাটপণ্য মেলার আয়োজন করা হয়। * জেডিপিসি কর্তৃক রাজধানী ও জেলা শহর সমুহে দেশের অভ্যন্তরে নিয়মিত মেলার আয়োজন করা হয়। এছাড়াও দেশের বাহিরে বিভিন্ন দেশে আয়োজিত মেলায় জেডিপিসি’র উদ্যোক্তাগণ অংশগ্রহণ করে থাকে। ফলে বিশ্বের প্রায় ১১৮টি দেশে বহুমুখী পাটপণ্য রপ্তানীর মাধ্যমে বর্তমানে বছরে প্রায় ১৩৯০ কোটি টাকা বৈদেশিক মূদ্রা অর্জিত হচ্ছে। * গত ২১-মার্চ-২০১৯ তারিখে সচিব মহোদয়ের স্বাক্ষরে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়, বিভাগ, দপ্তর/সংস্থায় ডিও লেটার প্রেরণ করার ফলে বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও সংস্থা তাদের অফিসে দাপ্তরিক কাজে ব্যবহারযোগ্য বহুমুখী পাটপণ্য জেডিপিসি’র সেলস সেন্টার থেকে ক্রয় করছে। * দেশের অভ্যান্তরে বহুমুখী পাটপণ্যের ব্যবহার বৃদ্ধির লক্ষ্যে গত ০৪ মার্চ/২০২০ তারিখে জেডিপিসির পক্ষথেকে সকল জেলা প্রশাসকদেরকে ডিও লেটার প্রেরণ করা হয়েছে এবং পুলিশ সুপার, উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের সাথে যোগাযোগ অব্যহত রয়েছে। * বহুমুখী পাটপণ্যের রপ্তানি বৃদ্ধির কার্যক্রম আরও জোরদার করার লক্ষ্যে বিশ্বের ১৮টি দেশে অবস্থিত বাংদেশের রাস্ট্রদুতগণকে ডিও লেটার পেরণ করা হয়েছে।এরই ধারাবাহিকতায় বহুমুখী পাট ও পাটপণ্যের ব্যবহার ও রপ্তানি বৃদ্ধির কার্যক্রম আরও জোরদার করার লক্ষ্যে বিদেশে অবস্থিত বাংলাদেশের বিভিন্ন দূতাবাস গুলোতে Jute Corner নির্মাণ করার জন্য উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। *এছাড়াও জেডিপিসি’র নিজেস্ব ওয়েবসাইড এর মাধ্যমে বহুমুখী পাটপণ্যের প্রচার ও প্রচারণা করা হয়। * বহুমুখী পাটজাত পণ্যের বাজার সম্প্রসারণ ও বিপণন কাযক্রমকে আরও আধুনিককায়ন করার প্রয়াসে ৩৬০ ০ (3D) অত্যাধুনিক ডিজিটাল ওয়েব সাইট Developing এর কাজ চলছে যা সম্পন্ন হলে সকল পণ্য on line এ ডিসপ্লের মাধ্যমে বিক্রয়ের ব্যবস্থা করা সম্ভব হবে।